২০২১ সালে আরও চরমে উঠবে দুর্ভিক্ষ, সতর্ক করল নোবেলজয়ী সংস্থা

২০২০ সাল ইতিহাসে একটি স্মরণীয় বছর হয়ে থেকে যাবে। করোনা ভাইরাসের মহামারী তো আছেই, আর দারিদ্র্য এবং অনাহার। সারা পৃথিবীর অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে। আর এই বেহাল দশায় সবচেয়ে বেশি সঙ্কটে পড়েছেন দিন আনি দিন খাই মানুষরা। কারোর বাসস্থান হারিয়েছে। কারোর দু-মুঠো খাবার সংস্থান নেই। সকলেই আশা রাখছেন, দ্রুত এই পরিস্থিতি কেটে যাবে। কিন্তু এরই মধ্যে আশঙ্কার কথা শোনাচ্ছে ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম। জাতিপুঞ্জের এই সংস্থার বিশেষজ্ঞদের দাবি, ২০২১ সাল আরও ভয়ানক হতে চলেছে। অনাহার এবং দুর্ভিক্ষ আরও চরম মাত্রা নিতে চলেছে আগামী বছরে।

সম্প্রতি সারা বিশ্বে খাদ্য নিরাপত্তার লড়াইয়ের জন্য নোবেল শান্তি পুরস্কার পেয়েছে ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম। আর এই পুরস্কার প্রাপ্তি নিয়ে কথা বলতে গিয়েই আশঙ্কার কথা জানালেন সম্পাদক বিয়াসলে। তাঁর মতে, করোনা পরিস্থিতি যেভাবে অর্থনীতিকে গ্রাস করেছে, তাতে খুব তাড়াতাড়ি সহজ ছন্দে ফেরা অসম্ভব। তাছাড়া এই অবস্থায় অনেক ক্ষেত্রই প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে পড়েছে। ফলে শ্রমিকের চাহিদা কমেছে অনেক। ফলে মহামারী মোকাবিলা করা গেলেও উপযুক্ত কর্মসংস্থান এখনই সম্ভব নয়। তাছাড়া প্রথমদিকে সরকারি ও বেসরকারি ত্রাণকার্যের ফলে পরিস্থিতি কিছুটা সামাল দেওয়া গিয়েছে। এখন সেসবও কমে আসছে।

তবে এর মধ্যেও আসন্ন লড়াইয়ের জন্য ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম প্রস্তুত, এমনটাই জানালেন বিয়াসলে। এ লড়াই সত্যিই অভূতপূর্ব। তবু তো লড়তে হবে। আর নোবেল শান্তি পুরস্কারও ঠিক সময়েই এসেছে। এই পুরস্কারমূল্যও যেমন কাজে লাগবে, তেমনই আরও খানিকটা প্রচারের ফলে কাজ সহজ হবে সংস্থার। তবে তার সঙ্গেই প্রস্তুত থাকতে হবে সমস্ত মানুষকে। এই বাঁচার লড়াই আসলে সবাইকে একসঙ্গেই লড়তে হবে।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More