প্রতি বছর বিলুপ্ত হচ্ছে ২ শতাংশ পতঙ্গ, জানাল সাম্প্রতিক গবেষণা

পরিবেশ দূষণ ও জলবায়ু পরিবর্তনের অনিবার্য ফল হিসাবে সাম্প্রতিক সময়ে হারিয়ে গিয়েছে বহু প্রজাতি। পৃথিবীর সামগ্রিক বাস্তুতন্ত্র যে বিপন্ন, সে-কথা বলাই বাহুল্য। আর এর মধ্যেই সম্প্রতি পৃথিবীর নানা প্রান্তের ৫৬ জন বিজ্ঞানীর রিপোর্ট নতুন করে উদ্বেগ তৈরি করছে। অবশ্য এই গবেষণার বিষয় শুধুমাত্র পতঙ্গ গোত্রের প্রাণীরা। সোমবার প্রকাশিত ‘প্রসিডিংস অফ দ্য ন্যাশানাল অ্যাকাডেমিক অফ সায়েন্স’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে এই গবেষণাপত্র। আর তাতেই দেখা গিয়েছে, বিগত ৩ দশক ধরে প্রতি বছর ১ থেকে ২ শতাংশ পতঙ্গ হারিয়ে যাচ্ছে পৃথিবীর বুক থেকে।

যে কোনো প্রাণীর বিলুপ্তিই উদ্বেগের বিষয়। তবে পতঙ্গদের ক্ষেত্রে বিষয়টা আরও তাৎপর্যপূর্ণ। এমনটাই মনে করছেন গবেষকরা। আর তার কারণও অত্যন্ত স্পষ্ট। প্রথমত, পতঙ্গদের সবচেয়ে বড়ো ভূমিকা উদ্ভিদের পরাগযোগের ক্ষেত্রে। পৃথিবীর ৮৫ শতাংশ উদ্ভিদের ক্ষেত্রেই পরাগযোগের জন্য কোনো বাহকের প্রয়োজন হয়। পতঙ্গরা না থাকলে এইসব উদ্ভিদের অস্তিত্বও হারিয়ে যাবে। তাছাড়া, নীম্ন গোত্রের প্রাণীদের শরীরে প্রোটিনের অন্যতম উৎস পতঙ্গরা। খাদ্যশৃঙ্খলে তাদের গুরুত্ব অস্বীকার করার কোনো জায়গাই নেই।

বিগত কয়েক বছরে নিয়ম করে ২ শতাংশ পতঙ্গ বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছে। বিজ্ঞানীরা এই ঘটনার নাম দিয়েছেন ‘ইনসেক্ট অ্যাপোকেলিপ্স’। আজকের এই ঘটনার জন্য দায়ী ৩০ বছর আগের জলবায়ু পরিবর্তন। তার সঙ্গে কীটনাশক, আগাছানাশক আর অপরিকল্পিত কৃষিকাজের প্রভাব তো আছেই। তবে এই ৩০ বছরে সেসব প্রভাব কমেনি, বরং বেড়েছে। ফলে আগামীদিনে আরও বেশি সংখ্যায় পতঙ্গের হারিয়ে যাওয়া শুধুই সময়ের অপেক্ষা। এই সঙ্কটের হাত থেকে মুক্তির উপায় খুঁজতে হবে অবিলম্বে।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More