গ্রামে গ্রামে বৃক্ষরোপণ, প্রাকৃতিক ‘অক্সিজেন ব্যাঙ্ক’ এলাহাবাদে

ক্রমশ বাতাসে বেড়ে যাচ্ছে কার্বন-ডাই অক্সাইডের পরিমাণ। দূষিত হচ্ছে পৃথিবী। এর জেরেই নতুন ‘ব্যাঙ্ক’ তৈরির উদ্যোগ নিল এলাহাবাদের গ্রামে। তবে এই ব্যাঙ্কে টাকা নয়, পাওয়া যাবে অক্সিজেন; তাও বিনামূল্যে, প্রাকৃতিক ভাবে। এর জন্যই সমস্ত জায়গায় বিপুল গাছ লাগানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে।

শুধু এলাহাবাদ নয়, কৌশম্বী, প্রতাপগড়-সহ উত্তর প্রদেশের বেশ কিছু জেলার ১০০টিরও বেশি গ্রামে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ওখানকারই একটি এনজিও এর দায়িত্ব নিয়েছে। প্রতি মুহূর্তে কমে যাচ্ছে সবুজের পরিমাণ। যার সরাসরি প্রভাব পড়ছে আমাদের চারপাশে। অক্সিজেনের ভাণ্ডার কমে যাচ্ছে। সেই সবকিছুকে মাথায় রেখেই গ্রামে গ্রামে এই গাছ লাগানোর উদ্যোগ। আকারিপুর, ধানিপুর, কোহলা, সাহেরুয়া-সহ ১০০টিরও বেশি গ্রামে এই কাজ করা হয়েছে। শুধু এনজিও’র কর্মীরাই নন, এতে সামিল হয়েছেন গ্রামবাসীরাও। প্রতিটা এলাকায় অন্তত একটি করে বট, অশ্বত্থ গাছ লাগানো হয়েছে। সেই সঙ্গে আছে বহু প্রাচীন গাছও। সব দিক থেকে যাতে পরিবেশ রক্ষা পায়, তারই কাজ করছেন এই মানুষগুলো।

পরিবেশ যত দূষিত হচ্ছে, যত গাছ কমছে, ততই কমছে অক্সিজেন। দেশের বেশ কিছু জায়গায় খোলা হয়েছে ‘অক্সিজেন পার্লার’। টাকা দিয়ে অক্সিজেন ‘কিনতে’ হয় সেখানে। কিন্তু যে কাজটি আসলে করা উচিত, সেটার দিকে নজর কি আছে আদৌ? জায়গায় জায়গায় গাছ লাগানোর পরিমাণ বাড়ালে যে এমন টাকা দিয়ে অক্সিজেন কিনতে হবে না! এলাহাবাদের এই গ্রামগুলোর মতো অন্যান্য জায়গাতেও যাতে এমন উদ্যোগ ব্যাপকভাবে শুরু হয়, সেটাই এখন কাম্য।

More From Author See More

Latest News See More