ভারতের প্রথম মোটরবাইক-মিউজিয়াম, রয়েছে ৫০০-রও বেশি বৈচিত্র্য

প্রকাণ্ড হলঘর জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে অসংখ্য মোটরবাইক। কোনোটির বয়স ৫০ বছর। কোনোটি আবার দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার বা তার চেয়েও প্রাচীন। সে-সব মোটরবাইকের সঙ্গে জড়িয়ে ব্রিটিশ, আমেরিকান কিংবা জার্মান ইতিহাসও। না, এই আশ্চর্য সংগ্রহ দেখতে বিলেতে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। ভারতের বুকেই রয়েছে এই আশ্চর্য মিউজিয়াম। 

‘ভিনটেজ মাইলস’ (Vintage Miles)। মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) পঞ্চগনি-মহাবালেশ্বর হাইওয়ের ওপর অবস্থিত মেটগুতাদ গ্রামেই রয়েছে এই আশ্চর্য মিউজিয়াম। নেপথ্যে পুনের বাসিন্দা বিনীত কেঞ্জল। আজ থেকে প্রায় ৩৫ বছর আগের কথা। ১৯৮৬ সাল থেকে প্রাচীন ও পরিত্যক্ত মোটরবাইকের মডেল সংগ্রহ করার প্রকল্প শুরু করেছিলেন বিনীত। অবশ্য তখনও পর্যন্ত জাদুঘর বা এইধরনের প্রদর্শনীশালা করার কোনো চিন্তাভাবনা ছিল না তাঁর। দু-হুইলারের প্রতি ভালোবাসা থেকেই এই প্রকল্পের জন্ম। 

প্রাথমিকভাবে ভারতে তৈরি বিভিন্ন মপেড, রয়্যাল এনফিল্ডের বন্ধ হয়ে যাওয়া মডেল, ভারতের প্রথম মনো-শক সাসপেনশনবাইক, হারকিউলিস ’৬৭— এসবই সংগ্রহ করতেন বিনীত। পরে সেই তালিকায় যুক্ত হয় ব্রিটেন থেকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় আমদানি করা ভিনটেজ টু-হুইলার। এমনকি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ব্যবহৃত ‘ম্যাচলেস বাইক’, ‘গিরনার স্কুটার’, ‘ববি বাইক’-এর মতো ঐতিহাসিক যান সংগ্রহ করতে বিদেশেও কখনও কখনও দৌড়াতে হয়েছে তাঁকে। এসবের বাইরে ‘শোলে’ কিংবা ‘ছোটি সি বাত’ সিনেমায় ব্যবহৃত আইকনিক বাইকেরও দেখা মিলবে এই মিউজিয়ামে হাজির হলে। বর্তমানে সবমিলিয়ে বিনীতের সংগ্রহের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫০০-এর গণ্ডি। 

তবে শুধু সংগ্রহ করলেই তো হয় না, এইসব প্রাচীন যন্ত্রাদির রক্ষণাবেক্ষণও প্রয়োজন। আর তা যথেষ্ট খরচসাপেক্ষও বটে। এই সমস্যার সমাধান করতেই বছর দশেক আগে মিউজিয়াম তৈরির সিদ্ধান্ত নেন বিনীত। ২০১৬ সাল থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছিল তার প্রস্তুতি। সেইসঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় ভিনটেজ গাড়ির প্রদর্শনীতেও অংশ নিতেন তিনি। ২০১৮ সালে সর্বপ্রথম জনসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয় ‘ভিনটেজ মাইলস’ জাদুঘরের দরজা। টিকিট মাত্র ১০০ টাকা। 

বর্তমানে এই জাদুঘরের সৌজন্যেই দেশ-বিদেশের পর্যটকদের নতুন আকর্ষণ হয়ে উঠেছে মহারাষ্ট্রের এই গ্রামটি। ‘ভিনটেজ মাইলস’-কে কেন্দ্র করেই ক্রমশ বদলাচ্ছে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের অর্থনীতিও। সবমিলিয়ে বলতে গেলে, ইতিহাস সংরক্ষণ কিংবা নস্টালজিয়াকে ধরে রাখা তো বটেই, বিনীতের এই ব্যক্তিগত উদ্যোগ তথা ভারতের একমাত্র মোটরবাইক মিউজিয়াম সেতুবন্ধনের কাজ করছে অতীত ও বর্তমানের মধ্যে… 

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More