আমেরিকার সেনাবাহিনীর প্রথম সিআইও ভারতীয় বংশোদ্ভূত ডঃ আয়ার

জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর মার্কিন সরকারের বিভিন্ন উচ্চপদে ভারতীয় বংশোদ্ভূত নাগরিকরা জায়গা পেয়েছেন। সেই পথ ধরেই এবার মার্কিন সেনাবাহিনীর প্রথম চিফ ইনফরমেশন অফিসার হিসাবে নিযুক্ত হলেন ডঃ রাজ আয়ার। জন্মসূত্রে তামিলনাড়ুর এই মানুষটি গত ২৬ বছরের কর্মজীবনে আমেরিকা সরকারের নানা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে এসেছেন। তবে একটি সদ্য নির্মিত সংস্থার প্রথম সর্বাধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া সত্যিই এক ইতিহাস।

তামিলনাড়ুর তিরুচিরাপল্লীতে এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম ডঃ রাজ আয়ারের। তবে আর্থিক অসংগতিতেও থেমে থাকেনি উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন। তিরচি এনআইটি থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে পাড়ি দিলেন যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে। আমেরিকার জীবনযাত্রা সম্মন্ধে কোনো ধারণাই ছিল না তখন। যে সামান্য সম্বল নিয়ে আমেরিকা পৌঁছেছিলেন, তাতে উচ্চশিক্ষা তো দূরের কথা, কোনোরকমে বেঁচে থাকাও অসম্ভব। ঠিক এইসময়েই জুটে গেল একটা স্কলারশিপ। আর ফিরে তাকাতে হয়নি। টেক্সাস ইউনিভার্সিটি থেকে ইলেক্ট্রনিক্স এবং পরে ম্যানেজমেন্টে ডিগ্রি অর্জন করে সেখানেই কাজে যোগ দিলেন।

গত ২৬ বছরে নানা বহুজাতিক সংস্থায় কাজ করেছেন ডঃ আয়ার। আর সেইসূত্রেই মার্কিন সরকারের নানা গুরুত্বপূর্ণ কাজের দায়িত্বও সামলাতে হয়েছে। বারাক ওবামা সরকারের বেশ আস্থাভাজন হয়ে উঠেছিলেন তিনি। এর মধ্যেই গত জুলাই মাসে মার্কিন সেনাবাহিনীতে নতুন একটি পদ সৃষ্টি করা হয়। পদমর্যাদায় তা তিন তারকাযুক্ত জেনারেলের পদের সমান। এমনকি সেনাবাহিনীর বাজেটের একটা বড়ো অংশের দায়িত্বেও থাকবেন চিফ ইনফরমেশন অফিসার। কিন্তু এই পদে কাকে বেছে নেওয়া হবে, সেটা নিয়েই চলছিল জল্পনা। সম্প্রতি সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে জানানো হল ডঃ রাজ আয়ারের নাম। আমেরিকার ইতিহাসে নানা সময় নানা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলেছেন ভারতীয়রাই। আর সেই ইতিহাসে এবার যোগ হল আরও একটি নাম।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More