২ বছরে প্রায় ২ হাজার বর্গকিলোমিটার বন-বিস্তার ভারতে

একদিকে সারা পৃথিবীজুড়ে জলবায়ু পরিবর্তনের মধ্যেও ক্রমশ হারিয়ে যাচ্ছে বনভূমি। চিন্তিত পরিবেশকর্মী থেকে গবেষক সকলেই। অন্যদিকে ভারতের পরিসংখ্যানে দেখা গেল খুশির খবর। কেন্দ্রীয় সংস্থা ‘ফরেস্ট সার্ভে অফ ইন্ডিয়া’-র দ্বিবার্ষিক রিপোর্ট ‘ইন্ডিয়া স্টেট অফ ফরেস্ট রিপোর্ট’-এ (India State of Forest Report) দেখা গেল, সারা দেশজুড়ে আবারও বৃদ্ধি পেয়েছে মোট বনভূমির পরিমাণ (Forest Cover)। আর তাও নেহাত সামান্য পরিমাণে নয়। গত ২ বছরে সব মিলিয়ে ২২১৬ বর্গকিলোমিটার এলাকায় নতুন করে জন্মেছে গাছ। আর বনভূমির সবচেয়ে বেশি সম্প্রসারণ ঘটেছে অন্ধ্রপ্রদেশে। আর মোট বনভূমির পরিমাণের নিরিখে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে মধ্যপ্রদেশ।

গতকালই প্রকাশিত হয়েছে দেশের বনভূমি সংক্রান্ত রিপোর্ট। সমীক্ষার তথ্য অনুযায়ী, দেশে বর্তমানে মোট বনভূমির পরিমাণ ৮০.৯ মিলিয়ন হেক্টর। যা সারা পৃথিবীর ২৪.৬২ শতাংশ। আর বিগত এক দশক ধরে এই পরিমাণ ক্রমশ উর্ধ্বমুখী। ২০১৯ সালের পরিসংখ্যানের চেয়ে চলতি বছরে দেশে বনভূমির মোট পরিমাণ বেড়েছে ১৫৪০ বর্গকিলোমিটার। এছাড়াও ৭২১ বর্গকিলোমিটার এলাকা সামাজিক বনসৃজনের আওতায় এসেছে। এর মধ্যে শুধু অন্ধ্রপ্রদেশেই বনভূমির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে ৬৪৭ বর্গকিলোমিটার। এছাড়াও প্রথম সারিতে রয়েছে তেলেঙ্গানা (৬৩২ বর্গকিলোমিটার), ওড়িশা (৫৩৭ বর্গকিলোমিটার), কর্ণাটক (১৫৫ বর্গকিলোমিটার) এবং ঝাড়খণ্ড (১১০ বর্গকিলোমিটার)। তবে সার্বিক বনভূমির পরিমাণের নিরিখে এখনও প্রথম স্থানে মধ্যপ্রদেশ।

মোটের উপর এই পরিসংখ্যান যথেষ্ট ইতিবাচক হলেও কিছুটা আশঙ্কার কারণও থেকে যাচ্ছে। আর তার সবচেয়ে বড়ো কারণ উত্তর-পূর্ব ভারতে বনভূমির পরিমাণ ক্রমশ কমে আসছে। গত ২ বছরে উত্তর-পূর্ব ভারতে মোট ১০২০ বর্গকিলোমিটার বনভূমি ধ্বংস হয়েছে। এর মধ্যে অরুণাচল প্রদেশে বনচ্ছেদনের পরিমাণ সর্বোচ্চ, ২৫৭ বর্গকিলোমিটার। হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত অন্যান্য রাজ্যগুলিতেও বনভূমি হ্রাস পেয়েছে আশঙ্কাজনক পরিমাণে। হিমালয় অঞ্চলের কোনো জেলাতেই গত ২ বছরে বনভূমির পরিমাণ বৃদ্ধি পায়নি। অথচ দেশের জীববৈচিত্রের একটা বড়ো অংশই নির্ভর করে হিমালয়ের বাস্তুতন্ত্রের উপর। যদিও দ্বিতীয় জীববৈচিত্রপূর্ণ অঞ্চল ম্যানগ্রোভ বনভূমির পরিমাণ মোটের উপর বৃদ্ধি পেয়েছে। এই পরিসংখ্যানের উপর নির্ভর করে নতুন করে বনভূমি সংরক্ষণ নীতি স্থির করা সম্ভব হলে, খুব তাড়াতাড়ি সমস্যার সমাধানের আশা রয়েছে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
মরুভূমির বুকেই বিরাট বনভূমি, চিনের বিজ্ঞানীদের কাণ্ডে অবাক সকলে

More From Author See More

Latest News See More