বাংলার ওপর দিয়েই ভারতে এসেছিল আধুনিক মানুষ!

আজ থেকে ১ লক্ষ বছর আগেও ভারতে আধুনিক মানুষের বাস ছিল। ভীমবেটকা (Bhimbetka) গুহাচিত্রই তার সবচেয়ে বড়ো প্রমাণ। ১৯৫৭ সালে এই গুহা আবিষ্কারের পর থেকেই উঠে এসেছে নানা রহস্য। আর সেই গুহাচিত্রের মাধ্যমেই সম্প্রতি ভারতে মানুষের বসতি গড়ে ওঠার মানচিত্র প্রস্তুত করার কাজও শুরু করেছেন গবেষকরা। আর এখানে তাঁদের মূল সূত্র হিসাবে রয়েছে কিছু গণ্ডারের ছবি। দুই শিং বিশিষ্ট গণ্ডার। আজও যাদের সুমাত্রা অঞ্চলে দেখা যায়। মধ্যভারতে কখনও এই প্রজাতির গণ্ডার ছিল না। অথচ ভীমবেটকার গুহায় আঁকা রয়েছে তাদের ছবি।

ভারতে নানা সময়ে মোট তিনটি প্রজাতির গণ্ডারের অস্তিত্ব ছিল। একটি আমাদের খুব পরিচিত একশৃঙ্গ বিশিষ্ট গণ্ডার। একসময় সারা ভারতেই দেখা যেত এদের। তবে এখন হিমালয়ের পার্বত্য অঞ্চলের বাইরে তাদের অস্তিত্ব নেই। অন্য প্রজাতির দুইটি শিং থাকলেও একটি আগেরটির চেয়ে বেশ ছোটো। এদের এখন মূলত জাভা দ্বীপ অঞ্চলে দেখা যায়। তবে উত্তর-পূর্ব ভারতেও এই প্রজাতির কিছু গণ্ডার রয়েছে। এই দুই প্রজাতির গণ্ডারের ছবিই রয়েছে ভীমবেটকার দেয়ালে। তবে তার সঙ্গে রয়েছে আরও একটি প্রজাতির ছবি, যাদের দুটি শিং-ই সমান দৈর্ঘ্যের। সুমাত্রায় দেখা মেলে এদের। ভারতে এক সময় এই প্রজাতির অস্তিত্ব থাকলেও তা ছিল ব্রহ্মপুত্রের পূর্বপাড়ে। ব্রহ্মপুত্রের পশ্চিমে এই প্রজাতি কখনও আসেনি।

গণ্ডারের এই ধাঁধা নিয়েই গবেষণা করেছেন প্রত্নতাত্ত্বিক শুভব্রত চক্রবর্তী। সম্প্রতি মুক্ত গবেষণার অনলাইন প্ল্যাটফর্ম অ্যাকাডেমিয়াতে নিজের গবেষণাপত্র প্রকাশও করেছেন তিনি। নাম দিয়েছেন ‘রিডল অফ রাইনো’ (Riddle Of Rhino)। সেখানে লৌহ আকরিক দিয়ে আঁকা ছবিগুলির পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ের জীববৈচিত্র্যের মানচিত্র নিয়ে তুলনামূলক আলোচনা করেছেন তিনি। আর শেষ পর্যন্ত তিনি এই সিদ্ধান্তে এসেছেন যে, মধ্য ভারতে যে মানুষরা বসবাস করেছিলেন তাঁরা নিশ্চই দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া থেকেই এসেছিলেন। আর যাত্রাপথে বাংলার (Bengal) উপর দিয়েই যেতে হয়েছে তাঁদের। পাশাপাশি সেই সময়েও যে মানুষের বংশপরম্পরায় যথেষ্ট স্মৃতি গড়ে উঠেছিল, তাও প্রমাণ হয় এই ছবি থেকে। কারণ ব্রহ্মপুত্র পেরিয়ে মধ্যভারতে পৌঁছতেও বেশ কিছু প্রজন্ম কেটে গিয়েছিল। এই সময় বাংলার বুকেও কোথাও বসতি গড়ে উঠেছিল, সেই বিষয়েও আশাবাদী তিনি। হয়তো কোনোদিন খননকার্যের মাধ্যমে উদ্ধার হবে সেই নিদর্শন। বয়সে যা হার মানাবে ভীমবেটকার গুহাচিত্রকেও।

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
প্রতিবেশী দেশ ছিল ভারত-অস্ট্রেলিয়া, প্রমাণ দিল সদ্য-আবিষ্কৃত ভীমবেটকার জীবাশ্ম

More From Author See More

Latest News See More