এই ডাইনোসরের ভেতরেও রয়েছেন রবীন্দ্রনাথ!

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। বাঙালির প্রাণের পুরুষ তিনি। সব জায়গায় ছোঁয়া রয়েছে তাঁর। কিন্তু ডাইনোসরের মধ্যেও যে তিনি আছেন, সেটা কজন জানত? আশ্চর্য মনে হলেও, এটাই চমকপ্রদ খবর। ভারতেই প্রাপ্ত একটি ডাইনোসরের নামের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছেন কবিগুরু।

বারাপাসরাস ট্যাগোরেই। ১৮ মিটার লম্বা এই ডাইনোসরটি একটা সময় দাপিয়ে বেড়াত ভারতের মাটি। জুরাসিক পার্ক সিনেমায় যে লম্বা গলার ডাইনোসরদের দেখতে পেতাম আমরা, এটিও সেই প্রজাতিরই। তবে এর কিছু বিশেষত্ব ছিল। সেটা তাঁর বৈজ্ঞানিক নামেই বোঝা যাবে। ‘বারাপাসরাস’ শব্দটির প্রথম ভাগ দুটি এসেছে ‘বারা’ বা ‘বড়’ এবং ‘পা’ শব্দ থেকে। অর্থাৎ, তুলনায় এই ডাইনোসরের পা বেশ বড় ছিল।

১৯৬০ সালে ভারতের আদিলাবাদ জেলা থেকে প্রথম এই ডাইনোসরের জীবাশ্ম পাওয়া যায়। সরোপড গোত্রের ডাইনোসরদের মধ্যে এটিরই প্রথম সম্পূর্ণ জীবাশ্ম পাওয়া যায়। সেই সময় ছিল কবিগুরুর শততম জন্মবার্ষিকী। তাই উত্তোলনের পর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সম্মানার্থে এই ডাইনোসরটির নাম রাখা হয় ‘বারাপাসরাস ট্যাগোরেই’। হ্যাঁ, শেষের ‘ট্যাগোরেই’ আর কেউ নন, রবীন্দ্রনাথই।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here