ঠিক যেন জানলা থেকে ঝরে পড়ছে বইয়ের স্তূপ, বার্সেলোনার রাস্তায় আশ্চর্য স্থাপত্য

রাস্তা দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে হয়তো দেখলেন ফুটপাথের কাছে পড়ে অসংখ্য বই। একটি দুটি নয়, কয়েকশো, কয়েক হাজারও হতে পারে। শুধু যে পড়ে আছে, তাই নয়, ঠিক যেন পাশের বাড়ির জানলা দিয়ে কেউ ঢেলে দিচ্ছেন এক বইয়ের স্তূপ। হঠাৎ এমন একটা দৃশ্য দেখলে অবাক লাগবেই। প্রাথমিক বিস্ময়ের ঘোর কাটিয়ে একটু সচেতন হলেই অবশ্য বোঝা যাবে বইয়ের স্তূপটি আসলে স্থির। বাস্তবে কেউ এভাবে বই ঢেলে দিচ্ছেন না। এটি একটি মূর্তি।

স্পেনের বার্সেলোনা শহরের রাস্তায় হাঁটলে এমন দৃশ্য চোখে পড়বেই। আজ ৯ বছর ধরে সেখানে দাঁড়িয়ে আছে এরকম তিনটি স্তম্ভ। ২০১২ সালে এই তিনটি স্তম্ভ তৈরি করেছিলেন স্পেনের বিখ্যাত স্থপতি আরসিলিয়া মার্টিন। বই নিয়ে নানা ধরণের পরীক্ষামূলক শিল্প তৈরিতে তাঁর খ্যাতি বিশ্বজোড়া। তবে এরকম অভিনব শিল্প আর নেই। এই তিনটি স্তম্ভের নাম দিয়েছেন ‘বায়োগ্রাফিস’। একটি প্রাচীন দুর্গ, একটি পুরনো ম্যানিসন এবং অন্যটি শিল্পীর নিজের বাড়ি। তিনটি অট্টালিকার জানলা থেকেই এভাবে বইয়ের স্তম্ভ নেমে এসেছে।

অবশ্য এই শিল্পের জন্য একটিও বই নষ্ট করা হয়নি বলে জানিয়েছেন আরসিলিয়া মার্টিন। প্রায় ৫০ হাজার বইয়ের মলাটের ফটোকপি দিয়ে তৈরি পুরো স্তম্ভটি। সেইসঙ্গে স্তম্ভের ভিতরে ধাতব কাঠামো দিয়ে শক্তিশালী করা হয়েছে। পথচলতি মানুষ এই স্তম্ভের অবাক করা চেহারা দেখে এগিয়ে আসেন। হয়তো বিরাট স্তূপ থেকেই চোখে পড়ে গেল কোনো নতুন বই! এভাবেই যদি পাঠকদের সামনে নতুন নতুন বই পৌঁছে দেওয়া যায়, তাহলে তার থেকে আনন্দের আর কিছুই হতে পারে না বলে মনে করেন শিল্পী। আর এই ৯ বছরে তাঁর সেই ইচ্ছা অনেকটাই সার্থক।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More